বাঙালিনিউজ
আন্তর্জাতিকডেস্ক

আজ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বুধবার পাকিস্তানের ইসলামাবাদ হাইকোর্ট কারাবন্দী সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ, মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ ও জামাতা মোহাম্মাদ সফদারকে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছেন। বিবিসি ও পার্সটুডে জানায়, নওয়াজ শরীফদের করা আপিলের শুনানি শেষে এই নির্দেশ দেন হাইকোর্টের দুই বিচারকের একটি বেঞ্চ।
বিচারকরা তাদের রায়ে বলেন, তিনজনের বিরুদ্ধে অ্যাকাউন্টেবিলিটি কোর্টের দেওয়া কারাদণ্ড স্থগিত রাখা হলো। আইন বিশেষজ্ঞ বলেছেন, কিছু আনুষ্ঠানিকতা শেষে তিনজনই মুক্তি পাবেন। তবে আজই সেসব আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে কিনা তা স্পষ্ট নয়।

লন্ডনে চারটি বিলাসবহুল ফ্ল্যাটের মালিকানা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয় নওয়াজ শরীফ ও তার পরিবারের ওপর। অবশ্য নওয়াজ পরিবার বরাবরই এই অভিযোগ অস্বীকার করে একে রাজনৈতিক হয়রানি বলে আসছে।

গত ৬ জুলাই পাকিস্তান মুসলিম লিগের (পিএমএল-এন) শীর্ষ নেতা নওয়াজ শরীফকে জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পত্তি অর্জনের দায়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয় অ্যাকাউন্টেবিলিটি কোর্ট। এছাড়া তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে ৭ বছর ও মরিয়মের স্বামী মোহাম্মদ সফদারকে ১ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

গত জুলাই মাসে রায়ের সময় স্ত্রী কুলসুম নওয়াজের চিকিৎসার জন্য লন্ডনে ছিলেন নওয়াজ ও তার মেয়ে মরিয়ম। কিন্তু রায়ের কয়েক দিন পরই তারা দেশে ফেরেন। এরপর বিমানবন্দর থেকেই গ্রেফতার হন তারা। সে সময় সফদার দেশেই ছিলেন। তিনি আদালতে আত্মসমর্পণ করে কারাগারে যান।

ওই রায়ে তাদের নির্বাচনের অযোগ্য ঘোষণা করা হয়ে। ফলে গত জাতীয় সংসদ প্রার্থী হওয়ার সুযোগ পায়নি নওয়াজ শরীফ পরিবার। নির্বাচনে সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে সরকার গঠন করে। উল্লেখ্য, নওয়াজ, মরিয়ম ও সফদার কারাগারে থাকা অবস্থাতেই কয়েক দিন আগে মারা যান নওয়াজের স্ত্রী কুসলুম নওয়াজ।